অনলাইন ইনকাম: ১০ টি অনলাইন শপিং সাইট

আজকের পোস্টে আমরা সবচেয়ে বড় অনলাইন শপিং মল নিয়ে আলোচনা করবো এবং সেই সাথে অনলাইন শপিং কি? অনলাইন শপিং কিভাবে করে, অনলাইনে কিভাবে পণ্য কেনাকাটা করতে হয়, এসব বিষয় গুলো নিয়ে আলোচনা করবো।

এছাড়াও আমরা বাংলাদেশের অনলাইন শপিং মল দারাজ অনলাইন শপিং থেকে কিভাবে ঘরে বসে খবুই সহজে মোবাইল দিয়ে পন্য কেনাকাটা করতে হয় তা বিস্তারিত আলোচনা করবো আজকের আর্টিকেলে।

সাম্প্রতিক সময়ে অনলাইন শপিং আমাদের জীবনকে অনেক সহজ করে দিয়েছে। আমরা এখন খুব সহজেই অনলাইন শপিং মাধ্যমে ঘরে বসে পছন্দের পন্য ক্রয় করতে পারতেছি।

ঘরে বসে পণ্য পছন্দ করা থেকে পণ্য হাতে পাওয়া এবং ঘরে বসে টাকা পরিশোধ করার মজাই অন্যরকম। মানুষ হয়তো আজ থেকে ৫০ বছর আগেও এমনটা ভেবেছিলো না। কিন্ত সাম্প্রতিক সময়ে খুবই অল্প সময়ে ইন্টারনেট থেকে অনলাইন শপিং সাইট গুলো খুজে বের করতে পারতেছি এবং অনলাইন শপিং সাইট থেকে অনলাই শপিং করতে পারছি।

পৃথিবীর অন্য সব দেশ গুলোতে অনেক আগে থেকেই অনলাইন শপিং চালু হলেও বাংলাদেশেে চালু হয়েছে কয়েক বছর আগে থেকে।

আমাদের দেশে যখন প্রথম অনলাইন শপিং চালু হয়, তখন মানুষ এখনকার দিনের মত অনলাইন শপিং করতে আগ্রহী ছিলো না। কারন সেই সময় ইন্টারনেট সম্পর্কে আজকের দিনের মত মানুষের জ্ঞান ছিলো না এবং সেই সময় ইন্টারনেট ছিলো ধীর গতি সম্পূর্ন্ন। এছাড়াও অনলাইন শপিং না করার অন্যতম একটা কারন ছিলো প্রতারনা।

বাংলাদেশর অনলাইন শপিং প্রতিষ্ঠান গুলো সেই সময় সাধারণ মানুষের কাছে টাকা নিয়ে পন্য ডেলিভারি দিতো না। কিন্তু বর্তমানে এমন কোন অভিযোগ সাধারন মানুষের নেই। যার কারনে বর্তমান সময়ে বাংলাদেশের অনলাইন শপিং নিয়ে কৌতুহল বেশি।

অনলাইন শপিং কি?

অনলাইন শপিং কি, এটা জানে না এমন মানুষ হয়তো পৃথিবীতে বিরল। কারন শহরের লোকজন থেকে গ্রামের প্রতন্ত অঞ্চলের মানুষ অনলাই শপিং মল থেকে তারা – তাদের নিত্য দিনের প্রয়োজনীয় সামগ্রী শপিং করে থাকে অনলাইন শপিং মল থেকে।

অনলাইন শপিং হলো ইন্টারনেট ব্যবহার করে, মোবাইল বা কম্পিউটার এর মাধ্যমে অনলাইন শপিং সাইট থেকে পণ্য অর্ডার করা এবং সেই পণ্য হাতে পাওয়া।

অনলাইন শপিং করার জন্য আপনার নিজেকে কোথাও যেতে হবে না। ইন্টারনেট ব্যবহার করে মোবাইল বা পিসির মাধ্যমে অনলাইন শপিং সাইট থেকে পণ্য অর্ডার করার পর কোম্পানির পক্ষ থেকে আপনার বাসায় অর্ডারকৃত পন্যটি পৌছে দিবে।

অনেকের মনে প্রশ্ন আসতে পারে টাকা কি আগে পরিশোধ করতে হবে?

না। পণ্যের টাকার আগে পরিশোধ করতে হবে না। পণ্য হাতে পাওয়ার পর টাকা পরিশোধ করতে হবে এবং আপনার যদি পন্য পছন্দ না হয়ে এক্ষেত্রে ফেরত পাঠাতে পারবেন।

কিন্তু পণ্য অর্ডার করার সময় ডেলিভারি চার্জ আগে পরিশোধ করতে হবে।

এই পুরো প্রসেসটা যেহেতু ঘরে বসে ইন্টারনেট এর মাধ্যমে করা হয়। এজন্য ইন্টারনেট এর মাধ্যমে ক্রয় বিক্রয় করাকে আমরা অনলাইন শপিং বলে থাকি।

কিভাবে অনলাইন শপিং করতে হয়?

ইতিপূর্বে অনলাইন শপিং সম্পর্কে আপনারা কিছুটা ধারনা পেয়েছেন। তারপরেও আপনাদের সুবিধার্তে অনলাইন শপিং কিভাবে করতে হয় তার একটা সংক্ষিপ্ত ধারনা তুলে ধরার চেষ্টা করবো। যাদের অনলাইন শপিং সম্পর্কে ধারনা কম তারা স্পষ্ট ধারনা পাবেন।

অনলাইন ব্যবসায়ীরা তাদের ই-কমার্স ওয়েবসাইটে প্রোডাক্ট এর ছবি এবং পোডাক্ট এর বিবরণ দিয়ে রাখেন এবং সেই সাথে প্রডাক্ট এর মূল্য দেওয়া থাকে।

আমরা মূল্য ও অন্য সব তথ্য জানার পর পছন্দ হলে পন্যটি ক্রয় করার জন্য অর্ডার কনফর্ম করি। অর্ডার কনফর্ম করার সময় আপনার পুরো নাম ঠিকানা এবং মোবাইল নম্বর দিয়ে ফরম ফিল আপ করতে হবে।

আপনার পুরো ঠিকানা এমন ভাবে দিতে হবে যাতে করে আপনার পন্যটি ডেলিভারীর সময়, কোম্পানির ডেলিভারী বয় আপনাকে খুব সহজেই সনাক্ত করতে পারে।

আপনার অর্ডার করার পর অনলাইন শপিং মল কোম্পানি যাচাই – বাছায় করে কুরিয়ারের মাধ্যমে পন্যটি পাঠিয়ে দিবে আপনার নিদির্ষ্ট ঠিকানায়। পন্যটি হাতে পেতে আপনাকে ৫/৭ দিন অপেক্ষা করতে হতে পারে।

এই পোস্ট গুলো আপনার ভালো লাগতে পারে——

বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় ৭ টি শপিং সাইট।

ইতিপূর্বে আমরা অনলাইন শপিং কি? কিভাবে অনলাইন শপিং করতে হয় এসব বিসয় গুলো নিয়ে আলোচনা করেছি। এখন আমরা বাংলাদেশের ৭ টি শপিং মল নিয়ে আলোচনা করবো। এবং পোস্টের শেষের দিকে ৩ টি আন্তর্জাতিক শপিং মল নিয়ে আলোচনা করবো। আশা করি এই শপিং মল গুলো থেকে পন্য ক্রয় করলে পরবর্তীতে কোন সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে না এবং এই শপিং সাইট গুলো থেকে পরিচিত হয়ে আপনাদের ভালো লাগবে।

  1. দারাজ অনলাইন শপিং – Daraz.com.bd
  2. রকমারি অনলাইন শপিং – Rokomari.com
  3. আজকের ডিল অনলাইন শপিং – Ajkerdeal.com
  4. ইভ্যালি অনলাইন শপিং – Evaly.com.bd
  5. ফুড পান্ডা খাবার শপিং – Foodpanda.com.bd
  6. পিকাবু অনলাইন শপিং – Pickaboo.com
  7. চাল-ডাল অনলাইন শপিং – Chaldal.com

আমরা উপরে যে ৭ টি অনলাইন শপিং মল সাইট শেয়ার করেছি এর সব গুলোই বাংলাদেশে খুবই জনপ্রিয় এবং বিশ্বস্ত। আপনারা এখান থেকে আপনাদের দৈনন্দিন জীবনের প্রত্যেকটি পন্য সামগ্রী এখান থেকে কেনাকাটা করতে পারবেন।

বিশ্বের জনপ্রিয় ০৩ টি অনলাইন শপিং মল

আমরা উপরে যে ০৭ টি অনলাইন শপিং মল সাইট শেয়ার করেছি এগুলো ছাড়াও বাংলাদেশ ভালো – ভালো অনলাইন শপিং মল রয়েছে, তবে সেগুলো এখনও তেমন একটা জনপ্রিয়তা লাভ করতে পারেনি।

এখন আমরা পুরো বিশ্বের ০৩ টি জনপ্রিয় অনলাইন শপিং মল সাইটের সাথে পরিচয় করিয়ে দিবো। আশা করি আপনাদের ভালো লাগবে।

  1. আমাজন অনলাইন শপিং – Amazon.com
  2. আলীএক্সপ্রেস অনলাইন শপিং – Aliexpress.com
  3. ই-বে অনলাইন শপিং – eBay.com

আরো দেখুন——

উপসংহার:

আমরা উপরে অনলাইন শপিং কি? কিভাবে অনলাইন শপিং করতে হয়? এছাড়াও আমরা ১০ টি অনলাইন শপিং মল এর সাথে আপনাদের পরিচয় করে দিয়েছি।

আশা করি আপনাদের ভালো লেগেছে। যদি আর্টিকেল টি ভালো লেগে থাকে তাহলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে পারেন। এতে করে তারাও অনলাইন শপিং সম্পর্কে স্পষ্ট ধারনা পাবে।

Share on:
Avatar

আমি নাসিম পারভেজ, এই সাইটটির প্রতিষ্ঠাতা। এই সাইটে টিপস & ট্রিকস সহ অনলাইন ইনকাম, ফ্রি ইন্টারনেট অফার ছাড়াও আরো টেকনোলজি বিষয়ের উপর সঠিক ও নির্ভুল তথ্য দেওয়া হয়।

Leave a Comment